Breaking News
Home / News / পোড়ানো হলো ‘সুরসম্রাট দি আলাউদ্দিন সঙ্গীতাঙ্গন’।

পোড়ানো হলো ‘সুরসম্রাট দি আলাউদ্দিন সঙ্গীতাঙ্গন’।

উপমহাদেশের অন্যতম একজন সঙ্গীতজ্ঞ,ওস্তাদ রবি শংকর উনাকে বাবা আলাউদ্দিন খান নামে সম্মোধন করতেন। উনার সন্তান ওস্তাদ আলী আকবর খান উপমহাদেশের অন্যতম সেরা সারোদ বাদক, উনার মেয়ে অন্নপূর্ণা দেবী আবার ওস্তাদ রবিশংকরের স্ত্রী ছিলেন.. আবার অন্নপূর্ণা দেবীর শিশ্য ছিলেন হরিপ্রসাদ চৌরসিয়া যিনি আরেক বিখ্যাত বাঁশি শিল্পী বা বাশুরিয়া।  মিলে মিশে একটা নিদারুণ শাস্ত্রীয় সংগীত পরিবার

ধর্মীয় কোন্দল ও রাজনৈতিক রকমের কারনের এত বড় মাপের একটা সংস্থান হারিয়ে যাচ্ছে… সংস্কৃতির দিক থেকে বাংলাদেশ অনেক অনেক সমৃদ্ধ, অনেকেই তা জানে না! সংগীত চর্চা অনেকেই করে কিন্তু জ্ঞান আহোরন করে না এবং সেটিকে আমাদের দেশের কিছু মানুষ সম্মান করতেও জানে না! কারণ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আবারও পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ‘সুরসম্রাট দি আলাউদ্দিন সঙ্গীতাঙ্গন’। কিছু দিন আগে দুপুরে ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ’র স্মৃতিধারক প্রতিষ্ঠানটিতে আগুন দেয় হরতাল সমর্থনকারী হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা।

সঙ্গীতাঙ্গনের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘২০১৬ সালেও মাদ্রাসাছাত্ররা এখানে আগুন দিয়েছিল। এবার হরতাল পালনকারীরা সবকিছু একেবারে নিশ্চিহ্ন করে দিয়েছে। সুরসম্রাটের স্মৃতিধারক কোনোকিছুই আর অবশিষ্ট থাকল না।’

সঙ্গীতাঙ্গনের নিরাপত্তারক্ষী প্রবীন্দ্র দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘আমি সঙ্গীতাঙ্গনের স্টোর রুমে থাকি। প্রশাসনিক কক্ষ ও স্টোর রুমে অনেক স্মারক, ছবি হারমোনিয়াম, তবলাসহ বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্র ছিল। সব পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে ঘরগুলো ছাড়া সঙ্গীতাঙ্গনের আর কিছু অরক্ষিত নেই।’

এভাবে হারিয়ে যাচ্ছে ধর্মীয় আর রাজনৈতিক কারণে আমাদের দেশের সংস্কৃতি গুলো,যদি এগুলোর সঠিক যত্ন নেওয়া হতো তাহলে আমাদের দেশের সংস্কৃতি অনেক সমৃদ্ধ হতো!

About royalforce71

Check Also

নিজ মাতৃভাষার পাশাপাশি অন্যের মাতৃভাষাকে সম্মান করুন।

আমরা সকলেই নিজ নিজ মাতৃভাষাকে ভালবাসি। তবে নিজ মাতৃভাষার পাশাপাশি অন্য ভাষাকেও সম্মান জানানো উচিৎ। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Skip to toolbar